Home / জাতীয় / অক্টোবরের শেষ সপ্তাহে জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফশীল ঘোষনা হবে।

অক্টোবরের শেষ সপ্তাহে জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফশীল ঘোষনা হবে।

সংবিধান অনুযায়ী আগামী ৩০ অক্টোবর থেকে ২০১৯ সালের ১৯ জানুয়ারির মধ্যে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন শেষ করার বাধ্যবাধকতা রয়েছে। নির্বাচন কমিশন সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ এক ব্রিফিং এ বলেছেন, আগামী একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের জন্য ৩০ অক্টোবরের আগেই সব প্রস্তুতি শেষ করার সিদ্ধান্ত হয়েছে এবং অক্টোবরের শেষেই সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করা হবে। ১০ ই জুলাই মঙ্গলবার কমিশন বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে নির্বাচন কমিশন।
বৈঠক শেষে সচিব সাংবাদিকদের বলেন, আজকের বৈঠকে বেশ কিছু এজেন্ডা নিয়ে আলোচনা হয়েছে। সংসদ নির্বাচনের জন্য ভোটার তালিকার কমপ্যাক্ট ডিস্ক প্রস্তুত করতে নির্দেশনা দেওয়া হবে ৩০ অক্টোবরের আগেই। সব প্রস্তুতি শেষ করে অক্টোবরের শেষেই তফসিল ঘোষণা করা হবে। এজেন্ডার আরেকটা বিষয় ছিলো তৃতীয় লিঙ্গদের নিয়ে। নির্বাচন কমিশন সিদ্ধান্ত দিয়েছে তৃতীয় লিঙ্গের নাগরিকদের আগামী বছর থেকে ভোটার তালিকা হালনাগাদের সময় হিজড়া হিসেবে অন্তর্ভুক্ত করা হবে। বর্তমানে যেসব হিজড়া ছেলে অথবা মেয়ে পরিচয়ে ভোটার হয়েছেন তারা আবেদন করলে হিজড়া হিসেবে অন্তর্ভুক্ত করা হবে।
তৃতীয় লিঙ্গের অধিবাসীরা অনেকদিন থেকে হিজড়া পরিচয়ে অন্তর্ভুক্ত হওয়ার জন্য দাবি জানিয়ে আসছিল। ইতোমধ্যে সরকার তাদের হিজড়া হিসেবে স্বীকৃতি দিয়ে গেজেট নোটিফিকেশন জারি করেছে।
এছাড়া আগামী বছর ১ মার্চ থেকে ভোটার দিবস জাঁকজমকভাবে পালন করা হবে জানিয়ে নির্বাচন কমিশন সচিব বলেন, দিবসটি পালন করলে জনসাধারণের মধ্যে ভোটাধিকার, নির্বাচন ও জাতীয় পরিচয়পত্র নিয়ে সচেতনতা সৃষ্টি হবে।
তিন সিটি নির্বাচন সম্পর্কে তিনি বলেন, বরিশাল সিটিতে ১০টি কেন্দ্রে এবং রাজশাহী ও সিলেটে দুইটি করে কেন্দ্রে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) ভোটগ্রহণ করা হবে। নির্বাচনে চারদিনের জন্য আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী মোতায়েন থাকবে।

About Golam Masum

Check Also

১০২ জন ইয়াবা কারবারির আত্মসমর্পণ

দেশে প্রথমবারের মতো ১০২ জন ইয়াবা কারবারি আত্মসমর্পণ করেছেন। আত্মসমর্পণের পর তাদের ফুল দিয়ে বরণ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *