Home / আন্তর্জাতিক / জাপানে টিনের কৌটায় ‘হেইসেই’ যুগের বাতাস বিক্রি

জাপানে টিনের কৌটায় ‘হেইসেই’ যুগের বাতাস বিক্রি

ডেস্ক রিপোর্ট

বিশ্বে কতো ধরনের অদ্ভূত ঘটনা ঘটে। আবার কতো ঘটনাকে মানুষ স্মরণীয় করে রাখতে অদ্ভূত ঘটনা ঘটায়। এমনই এক অদ্ভূত ঘটনার সাক্ষী হতে চলেছে জাপানের মানুষ। অদ্ভূত এ ঘটনাটি হলো, দেশটির মুদি দোকানসহ নানা জায়গায় বিক্রি হচ্ছে কৌটা ভর্তি বাতাস। যে কৌটায় রয়েছে হেইসেই যুগের বাতাস! সেটা আবার বিক্রি হচ্ছে ১০৮০ ইয়ানে (১০ ডলার)। মনে হতে পারে, হেইসেই যুগের এত মূল্যবান বাতাস আসলে কেমন? সেসময়কার বাতাস কীভাবে এতোদিন সংরক্ষণ করে রাখা হয়েছিলো? খবর এএফপি।

আসলে ঘটনাটি অতোটা গুরুগম্ভীর কিছু না। জাপানের বর্তমান সম্রাট আকিহিতো আগামী ৩০ এপ্রিল সিংহাসন ত্যাগ করবেন। তিনি ১৯৮৯ সালের ৮ জানুয়ারি জাপানের রাজসিংহাসনে বসেন। তার এ সময়কালকেই হেইসেই যুগ বলা হয়। ফলে কৌটাভর্তি যে বাতাস বিক্রি হচ্ছে সেটা মূলত এখনকারই বাতাস।

সম্রাট আকিহিতোর ক্ষমতা ত্যাগের পর ১২৬তম রাজা হিসেবে আগামী ১ মে সিংহাসনে বসবেন তার বড়ো ছেলে নারুহিতো। যেটাকে রেইওয়া যুগ বলা হবে।

বাতাসটি বাজারজাত করছে দেশটির হেসো প্রডাকশন কোম্পানি। প্রতিষ্ঠানটি এক হাজার ইউনিট বাতাস বিক্রি করতে পারবে বলে প্রত্যাশা করছে। হেসো প্রডাকশন কোম্পানির প্রেসিডেন্ট মিনোরু ইনামোতো বলেন, বাতাসের আসলে কোনো মূল্য নেওয়া হচ্ছে না। আমরা চাই মানুষ নতুন যুগে প্রবেশ করার পরও যেনো হেইসেই যুগের নির্মল বাতাসের মাধ্যমে প্রাণভরে শ্বাস নিতে পারে। কিংবা এটাকে অনেকে স্মরণীয় করে রাখতেও সংগ্রহে রাখতে পারে।

এই কৌটায় বর্তমান সময়ের বাতাস ছাড়া আর কিছুই নেই। তবে বাতাসের সঙ্গে ভিতরে পাঁচ ইয়েনের একটি কয়েন রয়েছে। যেটাকে দেশটিতে সৌভাগ্যের প্রতীক হিসেবে বিবেচনা করা হয়।

About polok chw

Check Also

বৈশাখী মেলা ২০২০

Post Views: 6

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *