সৌদি নারীরা পেল স্বাধীনভাবে পাসপোর্ট করার অনুমতি

পুরুষ অভিভাবকের সম্মতি ছাড়াই এখন থেকে দেশের বাইরে ঘুরে বেড়াতে পারবেন সৌদি আরবের নারীরা। এক রাজকীয় আদেশে জানানো হয়েছে, যেসব নারীর বয়স ২১ বছরের বেশি তারা পুরুষ অভিভাবকের সম্মতি ছাড়াই পাসপোর্টের জন্য আবেদন করতে পারবেন। এর আগে নারীদের পাসপোর্ট কররতে বাবা, ভাই বা নিকটাত্মীয় কোনো পুরুষ অভিভাবকের সম্মতি প্রয়োজন হতো।

শুক্রবার (২ আগস্ট) এই নতুন নিয়ম জারি করা হয়েছে বলে সংবাদমাধ্যম বিবিসির খবরে নিশ্চিত করা হয়।

শুধু ভ্রমণ নয়। বিবাহ কিংবা বিবাহবিচ্ছেদ ও শিশুর জন্ম-নিবন্ধনও লিপিবদ্ধ করার অধিকারও নারীদের দেওয়া হয়েছে বলে রাজকীয় এই আদেশনামায় জানানো হয়। বলা হয়েছে নারী-পুরুষ বৈষম্যে কাউকে যেন কর্মক্ষেত্রে হয়রানি না করা হয়।

এসব সিদ্ধান্তের ফলে মাধ্যমে রক্ষণশীল সৌদি আরব নারী ও পুরুষের সমানাধিকারে এক ধাপ এগিয়ে গেল। ক্রাউন প্রিন্স সালমানের ভিশন-২০৩০ অর্থনৈতিক পরিকল্পনার অংশ হিসেবে এসব পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে। এসময়ের মধ্যে তেল সমৃদ্ধ অর্থনীতি থেকে নির্ভরতা কমিয়ে দেশটি নারী-পুরুষদের আরও বেশি কর্মক্ষেত্রে যুক্ত করার পরিকল্পনা করছে। পরিকল্পনা করা হয়েছে মোট শ্রমশক্তির শতকরা ৩০ থেকে ২২ ভাগ নারী কর্মীর অংশীদারিত্ব।

যদিও সৌদি আরবের মানবাধিকার পরিস্থিতি নিয়ে এখনো অনেক সমালোচনা রয়েছে। অনেক নারীই পশ্চিমদেশগুলোতে রাজনৈতিক আশ্রয়ে পাড়ি জমাচ্ছেন।

About

Check Also

চলে গেলেন অ্যান্ড্রু কিশোর

নন্দিত কণ্ঠশিল্পী অ্যান্ড্রু কিশোর আর নেই। সোমবার, ৬ জুলাই তিনি শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন। তিনি …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *