আমাজনের সিইওর পদ ছাড়ছেন জেফ বেজোস

ই-কমার্স জায়ান্ট আমাজনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তার (সিইও) পদ ছাড়ছেন প্রতিষ্ঠাতা জেফ বেজোস। এর বদলে প্রতিষ্ঠানটির নির্বাহী চেয়ারম্যানের দায়িত্ব নেবেন তিনি। বেজোসের উত্তরসূরি হবেন অ্যান্ডি জেসি। বর্তমানে তিনি আমাজনের ক্লাউড ব্যবসার প্রধান হিসেবে কাজ করছেন। চলতি বছরের দ্বিতীয়ার্ধে এ পরিবর্তন সম্পন্ন হবে। খবর: রয়টার্স।

আমাজনের প্রতিষ্ঠাতা ও বর্তমান প্রধান নির্বাহী বেজোস জানিয়েছেন, এর ফলে নিজের অন্যান্য কর্মকাণ্ডে মনোযোগ দেয়ার সময় ও শক্তি পাবেন তিনি। গত মঙ্গলবার আমাজন কর্মীদের উদ্দেশে এক চিঠিতে তিনি লিখেছেন, ‘নির্বাহী চেয়ারম্যান হিসেবে আমি আমাজনের গুরুত্বপূর্ণ উদ্যোগগুলোর সঙ্গে জড়িত থাকব এবং ডে ১ ফান্ড, বেজোস আর্থ ফান্ড, ব্লু অরিজিন, দ্য ওয়াশিংটন পোস্ট এবং আমার অন্যান্য আগ্রহের বিষয়ে সময় ও শক্তি পাব।’ ৫৭ বছর বয়সী বেজোস আরও বলেন, ‘আমি এতটা কর্মচাঞ্চল্য এর আগে অনুভব করিনি এবং এটি অবসর গ্রহণ করা নয়। এ সংস্থাগুলোর পক্ষে যে প্রভাব রাখা সম্ভব, সে ব্যাপারে আমি অসম্ভব আগ্রহী।’

বর্তমানে বিশ্বের দ্বিতীয় শীর্ষ ধনী বেজোস ১৯৯৪ সালে আমাজন প্রতিষ্ঠা করেন। ওই সময় সাধারণ অনলাইন বই বিক্রেতা হিসেবে গ্যারেজে যাত্রা শুরু করা আমাজন এখন অনলাইন রিটেইল জায়ান্ট হিসেবে খ্যাত প্রতিষ্ঠান। গোটা বিশ্বে আমাজনের কর্মীসংখ্যা ১৩ লাখ। কভিড-১৯ মহামারির সময়টিতে ফুলে-ফেঁপে উঠেছে আমাজনের ব্যবসাও। গত বছর ৩৮ হাজার ৬০০ কোটি ডলার মূল্যের পণ্য বিক্রির খবর জানিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি। হিসেবে ২০১৯ সালের তুলনায় প্রতিষ্ঠানটির বিক্রি বেড়েছে ৩৮ শতাংশ। গত বছর আমাজনের মুনাফাও প্রায় দ্বিগুণ বেড়ে দুই হাজার ১৩০ কোটি ডলারের ঘরে দাঁড়িয়েছে।

About S Chowdhury

Check Also

‘লেখক মুশতাক আগেও আইনশৃঙ্খলা ও অন্যের বিশ্বাসে আঘাত করেছিলেন’ – স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

কারাবন্দি মুশতাক আহমেদের মৃত্যুর সঠিক কারণ ময়নাতদন্তের পর জানা যাবে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *