বাংলাদেশের ইতিহাসে রেমিট্যান্সের রেকর্ড

ঈদুল আজহা সামনে রেখে ব্যাংকিং চ্যানেলে বেড়েছে প্রবাসীদের আয় বা রেমিট্যান্সপ্রবাহ। করোনা সঙ্কটের মধ্যেও চলতি (জুলাই) মাসের প্রথম ২৭ দিনে ২ দশমিক ২৪২ বিলিয়ন মার্কিন ডলারের রেমিট্যান্স পাঠিয়েছেন প্রবাসীরা। প্রবাসীদের আয় পাঠানোর এই গতি অব্যাহত থাকলে মাস শেষে রেকর্ড পরিমাণ রেমিট্যান্স পাবে বাংলাদেশ।

বাংলাদেশের ইতিহাসে এক মাসে এর আগে কখনো এত পরিমাণ রেমিট্যান্স আসেনি। আজ অর্থমন্ত্রণালয় থেকে পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রতিবেদনে দেখা যায়, গত জুনে ১৮৩ কোটি ২২ লাখ ডলারের রেমিট্যান্স আসে। বাংলাদেশের ইতিহাসে একক মাসে এর আগে কখনো এত পরিমাণ রেমিট্যান্স আসেনি। এটি গত বছরের একই সময়ের চেয়ে প্রায় ৩৯ শতাংশ এবং মে মাসের চেয়ে প্রায় ২২ শতাংশ বেশি ছিল।

চলতি মাসের ২৭ তারিখ পর্যন্ত দেশের বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ ৩৭ দশমিক ১০ বিলিয়ন ডলারের নতুন রেকর্ড ছুঁয়েছে। বাংলাদেশের ইতিহাসে যা এযাবতকালের মধ্যে সর্বোচ্চ।

গত এক বছরে বাংলাদেশের বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ উল্লেখযোগ্য পরিমাণে বৃদ্ধি পেয়েছে। রিজার্ভের উল্লেখযোগ্য বৃদ্ধিতে গুরূত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছে রেমিট্যান্সের অন্তঃপ্রবাহ। যাদের অক্লান্ত পরিাশ্রমে এ অর্জন সেই সকল প্রবাসীদের প্রতি কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল।

About S Chowdhury

Check Also

জাপানে করোনায় মৃত্যুর চেয়ে এক মাসে আত্মহত্যা বেশি

করোনাভাইরাস মহামারির চেয়ে ভয়াবহ মানসিক স্বাস্থ্য সংকটের সঙ্গে লড়াই করছে জাপান। করোনাভাইরাস মহামারিতে জাপানে মোট …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *